মাটিরাঙ্গায় দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার : অস্ত্র আইনে মামলা

0
6

সাগর চক্রবর্তী কমল ::

মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি দেশীয় তৈরী এলজি, এক রাউন্ড গুলি, একটি চাইনিজ কুড়াল ও একটি রামদা উদ্ধার করেছে। খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম সড়কের চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের সাথে জড়িত আটক চার সন্ত্রাসীর দেয়া তথ্যমতে শুক্রবার রাতে মাটিরাঙ্গার সাপমারা এলাকায় কামাল ত্রিপুরার বসত ঘরের সিলিংয়ের উপর থেকে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ এসব অস্ত্র উদ্ধার করে।

তবে এসময় পুলিশের উপস্থিতি আন্দাজ করে চাঁদাবাজি ও ছিনতাই গ্রুপের গ্যাং লিডার কামাল ত্রিপুরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এঘটনায় কামাল ত্রিপুরাসহ আটককৃত চারজনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সাহাদাত হোসেন টিটো।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার সময়মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ খাগড়াছড়ির আলুটিলা পর্যটন এলাকার একটি দোকান থেকে চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের সাথে জড়িত চার সন্ত্রাসীকে আটক করে। এসময় তাদেরকে তল্লাশী করে তাদের কাছ থেকে ১৬ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে বলে জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সাহাদাত হোসেন টিটো। শুক্রবার রাতে আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাটিরাঙ্গা থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

আটককৃতরা হলো, আলুটিলা পর্যটন এলাকার রুদ্র্র মানিক ত্রিপুরা প্রকাশ বাপ্পি (১৮), পিতা- মৃত: অংসুমান ত্রিপুরা, পুনর্বাসন এলাকার ফনী বিকাশ ত্রিপুরা (২০), পিতা- পরিমোহন ত্রিপুরা, আলুটিলা পর্যটন এলাকার আকাশ মারমা (১৮), পিতা-তোয়াইংগ্য মারমার ও রিংকু ত্রিপুরা (১৮), পিতা-সৌম্যনাথ ত্রিপুরা।

উল্লেখ্য যে, আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম সড়কের মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন আলুটিলা, সাপমারা ও ব্যাঙমারা এলাকায় বিভিন্ন যানবাহনে চাঁদাবাজি, ভাঙচুর ও ছিনতাইয়ের ঘটনার সাথে জড়িত ছিল বলে পুলিশের প্রাথমিক জ্ঞিাসাবাদে স্বীকার করেছে বলেও জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সাহাদাত হোসেন টিটো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here