বাইডেনের রাতের ঘুম কেড়ে নেবেন কিমের সুন্দরী বোন

0
0

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  অস্ত্র-গোলাবারুদের গন্ধ না ছড়াতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি কড়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং সাফ জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেয়ার চেষ্টা করা হলে আমেরিকার ‘ঘুম হারাম’ করে দেয়া হবে।

এছাড়াও কিমের প্রভাবশালী এই বোন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়ার কঠোর সমালোচনা করেছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রীসহ শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের সিউল সফরের ঠিক আগমুহূর্তে এমন কড়া বার্তা দিলেন কিম ইয়ো জং।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির বরাতে জানা যায়, উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদপত্র রডং সিনাম’তে ইয়োর প্রতিক্রিয়া উদ্ধৃত করা হয়েছে। সেখানে ইয়ো বাইডেন সরকারের প্রতি হুঙ্কার ছেড়ে বলেছেন, ‘আগামী চার বছর যদি নিশ্চিন্তে ঘুমাতে চান, তাহলে আমাদের দিকে নজর দেয়ার চেষ্টা করবেন না। যদি তা করেন তাহলে ঘুম হারাম করে দেবো।’

মার্কিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তারা বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক যোগাযোগের চেষ্টা করছে। কিন্তু কিম জং উনের প্রশাসন তাতে সাড়া দিচ্ছে না। এছাড়া দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রায় দুই মাস অতিবাহিত হলেও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনকে এখনও স্বীকৃতি কিংবা শুভেচ্ছা জানায়নি কিমের দেশ।

গেল সপ্তাহে উত্তর কোরিয়ার সীমান্তে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়া চালিয়েছে। এরপরই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে কিম ইয়ো জং বলেছেন, ‘নতুন দায়িত্ব নেয়া মার্কিন প্রশাসনকে আমি সাবধান করে দিচ্ছি। তারা যেন সমুদ্রপার থেকে এসে আমাদের দেশে গোলাবারুদের গন্ধ ছড়ানোর চেষ্টা না করে। অন্যথায় আগামী ৪ বছর শান্তিতে ঘুমোতেও পারবে না।’

ওয়াশিংট ও সিউলের যৌথ সামরিক মহড়াকে বরাবরই আক্রমণের প্রস্তুতি হিসেবে বর্ণনা করে থাকে উত্তর কোরিয়া।

এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকেন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন দক্ষিণ কোরিয়া সফরের একদিন আগেই এমন হুঁশিয়ারি দিলেন কিম ইয়ো জং। সিউল থেকে টোকিং যাবেন ব্লিংকেন ও লয়েড।

চীন ও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে আরও জোরেসোরে প্রস্তুত হওয়ার লক্ষ্যেই এ সফর বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here