প্রশংসায় ভাসছেন গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইসমাইল হোসেন

0
17

জাহিদ হাসান জিহাদঃ  কিশোর গ্যাংদের দমনের জন্য গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইসমাইল হোসেন অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে একটি লেখা তার নিজস্ব ফেইসবুক ওয়ালে পোষ্ট করলে ক্ষনিকের মধ্যেই উক্ত লেখাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হয় এবং ওসি ইসমাইল হোসেনকে বিভিন্ন স্তরের লোকজন শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি তার নিজস্ব ফেইসবুক আইডিতে যে লেখাটি পোষ্ট করেছেন তা হুবুহু দেওয়া হলো…………….. আপনাদের সদয় অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, কিশোর গ্যাং হতে সাবধান!!! আপনাদের ছেলেদের সন্ধ্যার পরে বাসা থেকে বের হতে দেবেন না এবং আপনার সন্তানের নিয়মিত খোঁজখবর নিন। এখন হতে গাছা থানা এলাকার প্রতিটি মোড়ে বা বিভিন্ন চা ষ্টলে আড্ডা দিতে দেখা গেলে, মাথার চুলে রং করা হলে, স্বাভাবিকের চেয়ে অস্বাভাবিক ঢঙে চুল কাটা হলে, অপসংস্কৃতির কাটা/ছেঁড়া কাপড় পরিধান করলে, উঠতি বয়সি ছেলেদের অযাচিত আড্ডায় পাওয়া গেলে, কোনধরনের মাদকের সাথে সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে, ইভটিজিং করলে, অতিরিক্ত শব্দযুক্ত হর্ণ ও অতিরিক্ত গতিতে মোটরসাইকেল চালালে, নিজ এলাকা ব্যাতীত অন্য এলাকায় অযথা ঘুরাফেরা করলে ইত্যাদি আইন বহির্ভূত কাজ করলে তাদেরকে আটকপূর্বক আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে। এব্যাপারে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের তথ্য প্রেরণ ও সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করা হলো। অনুরোধক্রমে- অফিসার ইনচার্জ,গাছা থানা,গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। এদিকে উক্ত ঘোষনার পর গাছা থানা এলাকায় বিভিন্ন ঢং-এ চুল রাখা তিন কিশোরকে আটক করে অভিভাবকদের ডেকে এনে অভিভাবকদের উপস্থিতিতে আটককৃত কিশোরদের চুল স্বাভাবিক ভাবে কেটে অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এসময় গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইসমাইল হোসেন উপস্থিত সকলকে জানান, স্বাভাবিকের চেয়ে অস্বাভাবিক ঢংগে চুল ওয়ালা কিশোর যেখানেই পাওয়া যাবে সেখানেই তাদেরকে আটক করে তাদের মাথার চুল স্বাভাবিকভাবে কেটে দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here