করোনা মোকাবিলায় নিরলস কাজ করে যওয়া এক শান্তি যোদ্ধা -সর্বস্তরের মানুষের আস্থাভাজন ও ভালোবাসার প্রতীক -ইউএনও জয়া মারীয়া পেরেরা

0
10

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঐতিহাসিক মুজিব দিবসের তাৎপর্যময় দিনে(১৭-এপ্রিল) নওগাঁর নিয়ামতপুরে ২৯ তম উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন জয়া মারীয়া পেরেরা নিয়ামতপুরে তিনিই ছিলেন প্রথম নারী ইউএনও।
প্রথম দিকে সাধারণ মানুষের মনে একটু সংশয় হলেও দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই ভালো মানসিকতা বিচার,বুদ্ধি, মূল্যবোধ ও উদার মন,ইচ্ছা শক্তি এবং কর্তব্যপরায়ন সততা আর মানবিকতার কারনেই সর্বস্তরের মানুষের মন জয় করতে তার বেশি সময় লাগেনি। তিনি যেন নিয়ামতপুরবাসীর সকলের নিকট ন্যায়, নিষ্ঠা আর ভালোবাসার প্রিয় মানুষ হয়ে উঠেছেন।
সে কারণে নিয়ামতপুর বাসী দীর্ঘসময় পার করতে চায় তার সহিত হারাতে চায়না তাকে।

এই করোনা ক্লান্তিলগ্নে নিজের কথা নিজের ছোট্ট বাচ্চার কথা না ভেবে ঝড়বৃষ্টি মাথায় নিয়ে দিন রাত করোনার বিরুদ্ধে ছুটছেন তিনি। যখনই খবর পাচ্ছেন ছুটে চলেছেন করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত পর্যন্ত নিরলসভাবে ছুটে চলেছেন তিনি।
প্রশাসনিক ও জনকল্যানমূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে উপজেলার সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি।

চলোমান করোনা পরিস্থিতিতে সচেতনতা সৃষ্টি, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারান্টাইন নিশ্চিত করা, আক্রান্তে মৃত ব্যাক্তিদের মৃতদেহ যার যার ধর্ম অনুযায়ী দাফন কার্য নিশ্চিত করা। উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার মনিটরিং করে দ্রব্যমূল্যের কৃত্রিম সংকট ও উর্দ্বগতি নিয়ন্ত্রণ, উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স করোনা আইসোলেশন ও কোয়ারান্টাইন সেবা চালু করা সড়ক ও দোকান পাটে জনসমাগম বন্ধে করোনা শুরু থেকে আজ পর্যন্ত দিন রাত নিরলসভাবে কাজ যাচ্ছেন যার ফলে নিয়ামতপুরবাসীর নিকট তিনি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন।
করোনা সংক্রমণ রোধ ও সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তিনি প্রতিদিনই ঘুরছেন এবং খোঁজ রাখছেন উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের অধ্যুষিত জনপদে। জনপ্রতিনিধি প্রশাসনিক কর্মকর্তা পুলিশ গোয়েন্দা বিভাগ এবং সাংবাদিক সহ সকল নেতৃবৃন্দকে সমন্বয় করে তিনি নিয়ামতপুর উপজেলা কে আলোকিত করতে প্রানন্ত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। যার কারণে উপজেলার প্রতিটি মানুষের নিকট ছোট বড় সকলের নিকট তিনি যেন ভালোবাসার প্রিয় মানুষ হিসেবে পরিনত হয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরা জানান,সারাদেশে করোনা সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ ১ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত সাতদিনের কটোর লকডাউন জারি করেছেন। জারিকৃত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী নওগাঁর নিয়ামতপুরেও (১-জুলাই) থেকে লকডাউন বাস্তবায়ন করা হচ্ছে সে অনুযায়ী উপজেলার সকল সরকারী আধাসরকারি স্বায়ত্তশাসিত ও বে সরকারি অফিস বন্ধ থাকবে।

তিনি আরও জানান,বিধিনিষেধ চলাকালীন নিয়ামতপুর উপজেলার অভ্যন্তরীন সকল রুটে এবং আন্তজেলা বাস,মোটর সাইকেল থ্রি হুইলার হিউম্যান হলার বন্ধ থাকবে তবে রোগী পরিবহন কারী অ্যাম্বুলেন্স পন্যবহনকারী পরিবহন এই বিধিনিষেধর আওতামুক্ত থাকবে ঔষধের দোকান সার্বক্ষণিক খোলা রাখা যাবে তিনি বলেন সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা আর প্রচেষ্টায় নিয়ামতপুরের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি ও সংক্রমণ অনেকটা কমে এসেছে। আর একটু ধৈর্যধারণ করলে দ্রুতই এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here