নওগাঁর পত্নীতলায় দুইটি ইউনিয়নে আ. লীগের প্রার্থী বদল

0
10

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার দুটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদল করা হয়েছে। পত্নীতলা সদর ইউপিতে মোশাররফ হোসেন চৌধুরীর পরিবর্তে নাসির উদ্দিন এবং মাটিন্দর ইউপিতে জাহাঙ্গীর আলমের পরিবর্তে সুলতান মাহমুদের নাম ঘোষণা করা হয়।

আজ বুধবার দুপুরে পত্নীতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল গাফফার এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনের জন্য ৩ ডিসেম্বর নওগাঁর পত্নীতলা ও সাপাহার উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার ৭০৭টি ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ। ওই দিন পত্নীতলা সদর ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোশাররফ হোসেন চৌধুরী এবং মাটিন্দর ইউপিতে দলীয় মনোনয়ন পান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। পরে এ নিয়ে দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশের অভিযোগ, তাঁরা দুজনেই ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছিলেন। এ নিয়ে মনোনয়নবঞ্চিত ব্যক্তিরা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। মনোনয়নবঞ্চিত ব্যক্তিদের মধ্যে পত্নীতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন ও মাটিন্দর ইউনিয়নের সভাপতি সুলতান মাহমুদ এলাকায় বেশ জনপ্রিয়। তাঁরা দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় তাঁদের কর্মী-সমর্থকেরা হতাশ হয়েছিলেন। মোশাররফ ও জাহাঙ্গীরের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তাঁদের কর্মী-সমর্থকেরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল গাফফার জানাননওগাঁর পত্নীতলায় দুই ইউনিয়নের আ.লীগের প্রার্থী বদল

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার দুটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদল করা হয়েছে। পত্নীতলা সদর ইউপিতে মোশাররফ হোসেন চৌধুরীর পরিবর্তে নাসির উদ্দিন এবং মাটিন্দর ইউপিতে জাহাঙ্গীর আলমের পরিবর্তে সুলতান মাহমুদের নাম ঘোষণা করা হয়।

আজ বুধবার দুপুরে পত্নীতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল গাফফার এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনের জন্য ৩ ডিসেম্বর নওগাঁর পত্নীতলা ও সাপাহার উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার ৭০৭টি ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ। ওই দিন পত্নীতলা সদর ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোশাররফ হোসেন চৌধুরী এবং মাটিন্দর ইউপিতে দলীয় মনোনয়ন পান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। পরে এ নিয়ে দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশের অভিযোগ, তাঁরা দুজনেই ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছিলেন। এ নিয়ে মনোনয়নবঞ্চিত ব্যক্তিরা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। মনোনয়নবঞ্চিত ব্যক্তিদের মধ্যে পত্নীতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন ও মাটিন্দর ইউনিয়নের সভাপতি সুলতান মাহমুদ এলাকায় বেশ জনপ্রিয়। তাঁরা দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় তাঁদের কর্মী-সমর্থকেরা হতাশ হয়েছিলেন। মোশাররফ ও জাহাঙ্গীরের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তাঁদের কর্মী-সমর্থকেরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল গাফফার জানান পত্নীতলা সদর ও মাটিন্দর ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদল করেছে দলীয় মনোনয়ন বোর্ড। পত্নীতলা সদরে প্রার্থী পরিবর্তন করে নাসির উদ্দিন এবং মাটিন্দর ইউপিতে সুলতান মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। আজ সকালে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয় থেকে তাঁরা দুজন দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় দলের সভাপতি শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামুইরহাট) আসনের সাংসদ শহীদুজ্জামান সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন নাসির উদ্দিন ও সুলতান মাহমুদ। পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। পত্নীতলা সদর ও মাটিন্দর ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদল করেছে দলীয় মনোনয়ন বোর্ড। পত্নীতলা সদরে প্রার্থী পরিবর্তন করে নাসির উদ্দিন এবং মাটিন্দর ইউপিতে সুলতান মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। আজ সকালে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয় থেকে তাঁরা দুজন দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় দলের সভাপতি শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামুইরহাট) আসনের সাংসদ শহীদুজ্জামান সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন নাসির উদ্দিন ও সুলতান মাহমুদ। পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here