,


শিরোনাম:
«» বালিয়াডাঙ্গীতে ৫৩ মধ্যে ৪৮ টি ভূমি-গৃহহীন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার উপলক্ষে ঘর- প্রেস ব্রিফিংয়ে এউএনও «» ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা «» আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঠাকুরগাঁওয়ে মুজিববর্ষ ও ঈদ উপহার উপলক্ষে আরও ২৬১২ভূমিহীন পাচ্ছেন জমি ও নতুন ঘর «» আদমদীঘি গৃহ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন «» আদমদীঘিতে ব্রাকের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁর সাপাহারে ৪৫ টি গৃহহীন পরিবার উদ্বোধন উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং «» মাদ্রাসার এতিম শিশুদের নিয়ে সেভিয়ার ফাউন্ডেশন রাজশাহী ইউনিট এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» কে এই মহা ক্ষমতাধর শলোক মোল্লা- হরিণাকুন্ডুতে সাংবাদিক কে প্রাণনাশের হুমকি,থানায় অভিযোগ দায়েরঃ বিএমএসএস’র পক্ষে নিন্দা, প্রতিবাদ ও গ্রেফতার দাবী «» সাংবাদিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে নওগাঁয় বিএমএসএফের মানববন্ধন

মাটিরাঙ্গায় চিকনগুনিয়া প্রতিরোধ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

চেঙ্গী প্রতিবেদক ::

চিকুনগুনিয়া জ্বরের কারণ ও প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক এক সেমনিার মাটিরাঙ্গার পলাশপুর জোন সদরের চিত্তবিনোদন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। ৪০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন বিজিবি জওয়ানদের সচেতনতায় এ সেমিনারের আয়োজন করে। বুধবার বেলা ১২টার দিকে দিনব্যাপী এ সেমিনারের উদ্বোধন করেন পলাশপুর জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ খালিদ আহমেদ পিএসসি।

চিকুনগুনিয়া জ্বরের কারণ ও প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক এক সেমনিার মুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ২৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মেজর ডা: জুনায়েদ আহম্মেদ তালুকদার, এএমসি।

সেমিনারে বলা হয়, সাধারণ জ্বর বা ডেঙ্গু জ্বরের সাথে সাদৃশ্য থাকলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে চিকুনগুনিয়া একটু ভিন্ন রকমের হয়ে থাকে। সাধারনত মশা কামড়ানোর ৩ থেকে ১০ দিনের মধ্যে এই জ্বরের লক্ষণ দেখা দিতে শুরু করে বলে সেমনিারে জানান মেজর ডা: জুনায়েদ আহম্মেদ তালুকদার, এএমসি। হঠাৎ করে উচ্চমাত্রার জ্বর আসা চিকুনগুনিয়ার প্রথম লক্ষণ বলে জানান তিনি।

চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হলে জ্বরের সঙ্গে সঙ্গে ব্যথা শুরু হয়। প্রথমে হাত এবং পা দিয়ে শুরু হয়ে ধীরে ধীরে সারা শরীরে ব্যথা অনুভূত হতে থাকে। ব্যাথা বাড়ার সাথে সাথে শারীরিক দুর্বলতাও বাড়তে থাকে। চিকনগুনিয়ার ফলে গায়ে লাল লাল দানার মতো র‌্যাশ দেখা যেতে পারে।

চিকুনগুনিয়া জ¦রের কোনো প্রতিষেধক নেই এবং কোন টিকাও এখন পর্যন্ত আবিস্কার হয়নি উল্লেখ করে সেমিনারে বলা হয় এ রোগে আক্রান্ত রোগীকে সম্পূর্ণ বিশ্রামে রাখতে হবে এবং প্রচুর পানি বা অন্যান্য তরল খেতে দিতে হবে। জ্বরের জন্য সাধারন প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধই যথেষ্ট। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যথার ওষুধ সেবনের প্রয়োজন হতে পারে। রোগীকে যেন মশা না কামড়ায় এ জন্য রোগীকে অবশ্যই মশারির ভেতরে রাখতে হবে বলে সেমিনারে জানানো হয়।

ডেঙ্গু জ¦র একাধিকবার হলেও চিকুনগুনিয়া একবার হলে সাধারণত আর হয় না জানিয়ে এ রোগ প্রতিরোধে সবচেয়ে কার্যকর উপায় হলো এডিস মশা প্রতিরোধ। এজন্য এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংস করা এবং মশা নির্মূল করার মাধ্যমে চিকুনগুনিয়া রোগ প্রতিরোধ করা যেতে পারে বলে সেমিনারে উল্লেখ করা হয়।

চিকুনগুনিয়া জ্বরের কারণ ও প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক এক সেমনিারে ৪০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি‘র বিভিন্ন পর্যায়ের সৈনিকগণ অংশগ্রহণ করে।

 

 

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ