,


শিরোনাম:
«» বালিয়াডাঙ্গীতে ৫৩ মধ্যে ৪৮ টি ভূমি-গৃহহীন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার উপলক্ষে ঘর- প্রেস ব্রিফিংয়ে এউএনও «» ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা «» আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঠাকুরগাঁওয়ে মুজিববর্ষ ও ঈদ উপহার উপলক্ষে আরও ২৬১২ভূমিহীন পাচ্ছেন জমি ও নতুন ঘর «» আদমদীঘি গৃহ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন «» আদমদীঘিতে ব্রাকের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁর সাপাহারে ৪৫ টি গৃহহীন পরিবার উদ্বোধন উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং «» মাদ্রাসার এতিম শিশুদের নিয়ে সেভিয়ার ফাউন্ডেশন রাজশাহী ইউনিট এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» কে এই মহা ক্ষমতাধর শলোক মোল্লা- হরিণাকুন্ডুতে সাংবাদিক কে প্রাণনাশের হুমকি,থানায় অভিযোগ দায়েরঃ বিএমএসএস’র পক্ষে নিন্দা, প্রতিবাদ ও গ্রেফতার দাবী «» সাংবাদিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে নওগাঁয় বিএমএসএফের মানববন্ধন

নিয়ামতপুরে শাশুড়ীকে ধর্ষণের চেষ্টা-থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নওগাঁর নিয়ামতপুরে জামাই এর বিরুদ্ধে শাশুড়ীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মহিষকুড়ি গ্রামে। শাশুড়ি বাদী হয়ে শুক্রবার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগসূত্রে জানা যায়, মহিষকুড়ি গ্রামের মজিদুল ইসলামের জামাই মুকুল হোসেন (৩৫) তার চাচা শাশুড়ির ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টারত অবস্থায় হাতেনাতে ধরা পড়ে। মুকুল হোসেন রাজশাহী জেলার তানোর উপজেলার বংপুর গ্রামের মৃত শুকুর আলীর ছেলে।

ভুক্তভোগী প্রতিবেদকে বলেন, ঘটনার দিন ভাতিজি জামাই ফোন করে তার চাচা শশুর বাড়িতে আছে কি না জানতে চাই। বাড়িতে নাই বললে কিছুক্ষণ পর জামাই এসে ১শ টাকা চায়। টাকা নিতে খাটের বিছানায় টাকা নিতে গেলে জামাই পেছন থেকে জাপটে ধরে। আমি নিজেকে রক্ষার জন্য চেষ্টা করি। এমন সময় আমার স্বামী চলে আসলে জামাইকে হাতেনাতে ধরে ফেলে।

ভুক্তভোগীর স্বামী বলেন, আমি বাড়ি ফিরে এসে দেখি আমার স্ত্রীর সাথে জামাই ধস্তাধস্তি করছে। হাতেনাতে ধরা পড়লেও আমার ভাই তার জামাই এর বিচার পরের দিন করবে বলে নিয়ে যায়। পরে জামাইকে গোপনে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

অভিযুক্ত মুকুলের শাশুড়ী বলেন, আমার জামাইকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।
নিয়ামতপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ