,


শিরোনাম:
«» বালিয়াডাঙ্গীতে ৫৩ মধ্যে ৪৮ টি ভূমি-গৃহহীন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার উপলক্ষে ঘর- প্রেস ব্রিফিংয়ে এউএনও «» ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা «» আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঠাকুরগাঁওয়ে মুজিববর্ষ ও ঈদ উপহার উপলক্ষে আরও ২৬১২ভূমিহীন পাচ্ছেন জমি ও নতুন ঘর «» আদমদীঘি গৃহ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন «» আদমদীঘিতে ব্রাকের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁর সাপাহারে ৪৫ টি গৃহহীন পরিবার উদ্বোধন উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং «» মাদ্রাসার এতিম শিশুদের নিয়ে সেভিয়ার ফাউন্ডেশন রাজশাহী ইউনিট এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» কে এই মহা ক্ষমতাধর শলোক মোল্লা- হরিণাকুন্ডুতে সাংবাদিক কে প্রাণনাশের হুমকি,থানায় অভিযোগ দায়েরঃ বিএমএসএস’র পক্ষে নিন্দা, প্রতিবাদ ও গ্রেফতার দাবী «» সাংবাদিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে নওগাঁয় বিএমএসএফের মানববন্ধন

ধানের সাথে এ কেমন শত্রুতা-কাদঁছেন নওগাঁর নিয়ামতপুরের কৃষক নূরনবী

 

সিরাজুল ইসলামঃ কাঁদছেন নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের কয়াশ পশ্চিমপাড়ার নিরিহ গরিব কৃষক মৃত- খয়ের আলী সরকারের ছেলে নূরনবী সরকার। কাঁদার কারণ হচ্ছে তার কষ্টে রোপনকৃত ৩ বিঘা জমির বোরো ধান প্রতিপক্ষরা তাঁকে সর্বশান্ত করতে কিটনাশক প্রয়োগ করে ঝলসিয়ে দিয়েছে। প্রতিপক্ষরা উচ্চ কন্ঠে  বলে বেড়াচ্ছেন ধান ঝলসানোর কথা।

এ বিষয়ে নূরুন নবী বিচার চেয়ে ধরনাও দিচ্ছেন বিভিন্ন জনের কাছে। কিন্তু কোথাও বিচার না পেয়ে অবশেষে প্রতিবেশী মৃত- বাহার আলী সরকারের ছেলে আনিছার সরকার (৫৮), আনিছার সরকারের ছেলে একরামুল সরকার (২৮) এবং অচরত সরকার (৩৫) এ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নূরনবীর সাথে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের দীর্ঘদিন যাবত পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। তারই জেরে নূরনবী গত ২১ মার্চ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিল। তাতে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ক্ষান্ত না হয়ে আক্রশমূলক প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য ২২ এপ্রিল রাতে আগাছ নিধনের গামাক্সিন কীটনাশক আধাপাকা বোরো ধানে প্রয়োগ করে প্রায় ৩ বিঘা জমির ধান সম্পূর্ণ নষ্ট করে দেয়।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী নূরনবী এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার সাথে আমার চাচা আনিছারের জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সম্প্রতি আমি উপজেলার চক দেওলিয়া মৌজার ১ একর ৩৩ শতাংশ সম্পত্তি ২০১৪ সালে আমার ছোট চাচা মনছের আলীর নিকট থেকে ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছি। ৭ বছর পর তার ভাই আনিছার রহমান ঐ সম্পত্তির ২২ শতাংশ সম্পত্তি নিজের বলে দাবী করে। সেই শত্রুতায় আমার কষ্টের লাগানো ৩ বিঘা বোরো ধান কীটনাশক দিয়ে পুড়ে সম্পূর্ন নষ্ট করে দেয়। এত আমার প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে। আমি তাকে বিষয়টি বলগে গেলে সে আমাকে মারা হুমকি প্রদান করে।
এ বিষয়ে নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ হুমায়ন কবির বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ