,


শিরোনাম:
«» বালিয়াডাঙ্গীতে ৫৩ মধ্যে ৪৮ টি ভূমি-গৃহহীন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার উপলক্ষে ঘর- প্রেস ব্রিফিংয়ে এউএনও «» ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা «» আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঠাকুরগাঁওয়ে মুজিববর্ষ ও ঈদ উপহার উপলক্ষে আরও ২৬১২ভূমিহীন পাচ্ছেন জমি ও নতুন ঘর «» আদমদীঘি গৃহ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন «» আদমদীঘিতে ব্রাকের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁর সাপাহারে ৪৫ টি গৃহহীন পরিবার উদ্বোধন উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং «» মাদ্রাসার এতিম শিশুদের নিয়ে সেভিয়ার ফাউন্ডেশন রাজশাহী ইউনিট এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» কে এই মহা ক্ষমতাধর শলোক মোল্লা- হরিণাকুন্ডুতে সাংবাদিক কে প্রাণনাশের হুমকি,থানায় অভিযোগ দায়েরঃ বিএমএসএস’র পক্ষে নিন্দা, প্রতিবাদ ও গ্রেফতার দাবী «» সাংবাদিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে নওগাঁয় বিএমএসএফের মানববন্ধন

আগুন ট্রাজেডির পুনরাবৃত্তি রোধে -পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল শিল্পকারখানা দ্রুত অপসারণ করার আহবান

 মোঃ আনোয়ার হোসেন

পরিবেশ আন্দোলন মঞ্চের সভাপতি আমির হাসান মাসুদ বলেন, আগুন ট্র্যাজেডির ফলে গত ১২ বছরে পুরান ঢাকায় দুই শতাধিক লোকের প্রাণহানি ঘটেছে। তবুও বদলায়নি পুরান ঢাকার চিত্র। আবাসিক এলাকায় এখনো রাসায়নিকের দোকান-গুদাম ও কারখানার ব্যবসা চলছে বহাল তবিয়েতে।

২০১০ সালের ৩ জুন নিমতলীতে রাসায়নিকের গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ১২৪ প্রাণ হারায়। ৯ বছর পর ২০১৯ সালের ২০ ফেব্রæয়ারি চকবাজারের চুড়িহাট্টায় আগুনে পুড়ে মারা যান ৭১ জন। দুই বছর পর আবার আরমানিটোলায় অগ্নিকান্ডে প্রাণ গেল আরও ৪ জনের। নিমতলী ও চুরিহাট্টা ট্র্যাজেডির পর পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যালের গোডাউন সরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল কিন্তু গত ১২ বছরেও সরানো হয়নি রাসায়নিকের গুদাম ও অবৈধ কারখানা। যার ফলে প্রায়ই আগ্নিকান্ডে প্রাণহানী ঘটছে। পুরান ঢাকা থেকে রাসায়নিকের গুদাম ও কারখানা সরাতে না পারলে এই অঞ্চলের মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যাবে না।

স্বাধীনতার পর থেকে আজ পর্যন্ত রাসায়নিক দ্রব্যের ব্যবসা অনেক বড় হয়েছে সুতরাং মানুষের জান এবং মালের নিরাপত্তা রক্ষায় এবং আগুন ট্রাজেডির পুনরাবৃত্তি রোধে কেমিক্যাল ব্যবসায়ীদের দ্রুত বিশেষ শিল্পায়িত অঞ্চলে পুনর্বাসন করা দরকার বলে আমরা মনে করি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ